কুড়িগ্রামে নিজেদের রেশন বাঁচিয়ে দু:স্থদের বিতরণ করলো সেনাবাহিনী

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

জুলাই ০৯ ২০২১, ১৬:৪৫

রোকন সরকার, কুড়িগ্রাম: চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে নিজেদের রেশন বাঁচিয়ে কুড়িগ্রামে শতাধিক দু:স্থ ও কর্মহীন মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে সেনাবাহিনী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় কুড়িগ্রাম ধরলা ব্রীজ সংলগ্ন প্রস্তাবিত শেখ রাসেল শিশু পার্ক ময়দানে রংপুর ৭২ পতাতিক বিগ্রেডের অন্তর্গত ৩০ বীর ব্যাটালিয়ন এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করে।

এ সময় শতাধিক দু:স্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন রংপুর ৩০ বীর ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর আবুল হাসানাত পিএসসি। বিতরণে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ক্যাম্প কমান্ডার মিজান-উর-রশীদ ভূঁইয়া, ক্যাম্প উপ-অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট তানজিম ফাহিম হিমেল, সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসারমোহাম্মদ রফিকুল হাসান প্রমুখ।

ধরলা ব্রীজ সংলগ্ন নিচু এলাকায় বসবাসরত দু:স্থরা সেনাবাহিনীর মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রি পেয়ে ভীষণ খুশি। ত্রাণ নিতে আসা ব্রীজের পূর্ব অংশের কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী সড়কের ঢালে বসবাসরত আকলিমা ও মঞ্জুরী জানান, ‘সেনাবাহিনী হামাকগুলাক ডাকছে শুনি খুব ভয় পাইছিলং। পরে যায় দেখি তামরা হামাকগুলাক ডাল, ডাল, আটা, তেল, লবন ও সাবান দিছে। এ্যালা কামোত যাবার পাবার নাগছি না। এই সময়োত এগুলা পায়া হামারাগুলার খুব উপকারোত নাগছে।’

ত্রাণ কার্যক্রমে এসে মেজর আবুল হাসানাত পিএসসি জানান, লকডাউন বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেক পোস্ট স্থাপন করে দায়িত্ব পালন করছে। বিধি-নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করছে। পাশাপাশি লকডাউনে কর্মহীন ও দু:স্থ অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে তাদের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছে। এছাড়াও সামাজিক বিধি নিষেধ মেনে কোভিড প্রটোকল অনুসরণ করে মানবসেবা ও জনকল্যাণমূলক কাজ হিসেবে সেনাবাহিনী ইতোমধ্যে কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রায় ৫ শতাধিক অসহায় ও দু:স্থ পরিবারকে খাদ্য সামগ্রি বিতরণ করেছে। এই কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।