সাতক্ষীরায় সিডিও ইয়ুথ টিম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এর শশ্মানের জন্য আবেদন

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

ডিসেম্বর ১৩ ২০১৮, ০৫:১৭

জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরাঃ আজ সিডিও ইয়ুথ টিমের সদস্যরা উপজেলার ভূরুলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওর্য়াডের অন্তর্ভুক্ত সোনামুগারী গ্রামের জেলেপাড়ার সনাতন ধর্মীয় মানুষদের মৃত্যু পরবর্তীতে দাহ করার মত স্থানীয় পর্যায়ে কোন ব্যবস্থা না থাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান বরাবর স্থানীয় জনগোষ্ঠীর পক্ষে শশ্মানের জন্য আবেদন করেন।

এসময় সংগঠনের সদস্যরা বলেন, ‘সংগঠনটি সকল সাম্প্রদায়িকতা ভুলে সকল সম্প্রদায়ের মানুষের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এলাকার ইতিবাচক পরিবর্তনে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ধর্মীয় সম্প্রীতির দেশ। এই দেশে সকল ধর্মের মানুষ একসাথে বাস করে।

তথ্য সূত্রে জানা গেছে উপজেলার ভূরুলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওর্য়াডের অন্তর্ভুক্ত সোনামুগারী গ্রামের জেলেপাড়ার সনাতন ধর্মীয় মানুষদের মৃত্যু পরবর্তীতে দাহ করার মত স্থানীয় পর্যায়ে কোন ব্যবস্থা না থাকায় অনেক দূরবর্তী স্থান অথবা ভিন্ন ভিন্ন স্থানে দাহ করতে হয়। বিষয়টি আমাদের কাছে অত্যন্ত বেদনাদায়ক বলে মনে হয়েছে।

তারা আরো বলেন, ‘এই গ্রামে ২ ধরনের জনগোষ্ঠির হিন্দু ও মুসলিম বসবাস করে এবং এই গ্রামের বসবাসকারী জনগোষ্ঠিদের মধ্য একটি বিরাট অংশ বাস করে জেলে সম্প্রদায়। হতদরিদ্র শ্রেণীর মানুষ হওয়ায় তারা শশ্মানের ব্যবস্থা না করতে পারায় আমরা তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি।’

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, ‘সত্যিই বিষয়টি অবশ্যই মানবিক। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শশ্মানের জন্য মুসলিম বন্ধুরা তাদের হয়ে দাঁড়িয়েছে।’ তিনি এসময় সকলের প্রশাংসা করে বলেন, ‘এভাবেই এগিয়ে যাবে সম্প্রীতির বাংলাদেশ। আবেদন গ্রহণকালীন সময়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি আন্তরিকতার সাথে দেখার জন্য উপজেলা সহকারি কমিশনারকে বলেন।

মূলত, সিডিও ইয়ুথ টিম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার দরিদ্র বঞ্চিত বাঙালি, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও বিভিন্ন পেশাজীবী জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে এলাকার শিক্ষা, কৃষি, পরিবেশ ও প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।