সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মাছের ঘেরে বিষ দিয়ে ৪৪ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন 

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

মে ২৯ ২০২০, ১৯:০৭

রেজওয়ান উল্লাহ, কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দুইটি মাছের ঘেরে কীটনাশক প্রয়োগ করে প্রায় ৪৪ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করার অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে,উপজেলার কেরালকাতা ইউনিয়নের পুটুনী এলকায়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ ঘের মালিক নুর মোহাম্মদ বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্থ দিশেহারা ঘের মালিক নুর মোহাম্মদ শুক্রবার বিকালে সাংবাদিকদের জানান, পুটুনী মৌজায় তার পাশাপাশি ৫ বিঘা ও ৭ বিঘা জলাকার বিশিষ্ট দুটি পাঙ্গাস মাছের ঘের আছে। ঘের দুটিতে তার আনুমানিক ১১০০ মন মাছ ছিল। তার এ রকম ১৯টি মাছের ঘের আছে।

গত রোববার (২৪ মে) রাত ১০ টার দিকে তিনি পুটুনী মৌজার ওই দুটি ঘের দেখাশুনা করে বাড়ি চলে আসেন। পর দিন ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে ওই দুটি ঘেরে তিনি গিয়ে দেখতে পান মাছ মরে সব ভেসে উঠছে। যার ওজন প্রায় ৯০০ মন। তিনি আরো বলেন, ২৪ তারিখ ওই সময় থেকে ২৫ তারিখ ওই সময়ের মধ্যে তার ওই দুটি মাছের ঘেরে অজ্ঞাতনামা কে বা কারা অবৈধ প্রবেশ করে কীটনাশক ঔষুধ প্রয়োগ করে ২০০ মন মাছ চুরি করে নিয়ে যায় এবং প্রায় ৯০০ মন মাছ মেরে ফেলে। এতে তার আনুমানিক ৪৪ লক্ষ টাকার মাছের ক্ষতি সাধন হয়েছে।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, তার ধারণা, তার চির প্রতিদদ্বী ঘের ব্যবসায়ী একই গ্রাম পুটুনী চারা বটতলা এলাকা রেজাউল ইসলাম ওরফে ময়না (৪২) দীর্ঘদিন ধরে তার ক্ষতিসাধন করার পায়তারা করে আসছে। তার আশংকা ওই রেজাউল ইসলাম ও সাথে থাকা অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা তার ঘেরে কীটনাশক ঔষুধ প্রয়োগ করে ২০০ মন মাছ চুরি ও ৯০০ মন মাছ মেরে ক্ষতিসাধন করতে পারে।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মুনীর-উল-গীয়াস জানান, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। তবে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।