বড়লেখায় খুন হওয়া জাকারিয়া জিপিএ-৪.৬০ পেয়েছে, গ্রেপ্তার হয়নি খুনি

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জুন ০১ ২০২০, ০২:৪৯

এম.এম আতিকুর রহমান: মৌলভীবাজারের বড়লেখায় এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের ১০ দিন আগে নির্মমভাবে খুন হওয়া সেই জাকারিয়া হোসেন জিপিএ-৪.৬০ পেয়ে পাশ করেছে। নির্মম এ খুনের ঘটনার ১১দিন অতিবাহিত হলেও এখনো খুনী গ্রেফতার হয়নি।

রোববার ফলাফল প্রকাশের পর নিহত জাকারিয়ার বাবা-মা, স্কুলের শিক্ষক/শিক্ষিকা ও সহপাঠীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। এ সময়ে এক হৃদয় বিদারক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। নির্মম এ খুনের ঘটনার ১১ দিন পরও খুনী আজিম উদ্দিনকে পুলিশ গ্রেফতার করতে না পরায় তাদের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজমান। জাকারিয়া হোসেন উপজেলার দক্ষিণভাগ এনসিএম উচ্চ বিদ্যালয় হতে চলতি বছর বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল। সে বাজারের পাশ্ববর্তী আরেঙ্গবাদ গ্রামের ব্যবসায়ী সালাহ উদ্দিনের ছেলে।

জানা গেছে, গত ২১ মে রাতে দোকানের পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে সম্পর্কের চাচা আজিম উদ্দিনের ছুরিকাঘাতে এসএসসি পরীক্ষার ফলপ্রার্থী জাকারিয়া হোসেন নির্মমভাবে খুন হয়।

ছেলে খুনের ঘটনায় সালাহ উদ্দিন প্রবাস ফেরৎ আজিম উদ্দিনকে প্রধান আসামী করে থানায় হত্যা মামলা করেন। আসামী গ্রেফতারের দাবীতে জাকারিয়া হোসেনের সহপাঠীরা দক্ষিণভাগ বাজারে মানববন্ধন কর্মসুচিও পালন করে। ছাত্র -শিক্ষক সহ সর্বস্থরের জনতাও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

নিহত মেধাবী স্কুলছাত্র জাকারিয়ার বাবা সালাহ উদ্দিন কান্নাজড়িত কন্ঠে জানান, এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল জানার আগেই খুনি আজিম উদ্দিন আমার ছেলেকে নির্মমভাবে হত্যা করে পালিয়ে যায়। ঘটনার ১০ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ আসামীকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি। সে দুঃখ প্রকাশের ভাষা জানা নেই।
এখন একটাই দাবী পুলিশ যেন আমার ছেলের খুনিকে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করে । সহপাঠী ছাত্র শিক্ষক ও এলাকাবাসীও অবিলম্বে আসামি গ্রেফতারে প্রশাসনের কার্যকর পদক্ষেপের দাবি জানান।