বিশ্ববিখ্যাত দাঈ ইঞ্জিনিয়ার হাজী আবদুল মুকিত সাহেবের ইন্তেকাল

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

এপ্রিল ১১ ২০২০, ১৯:১৬

বিশ্ববিখ্যাত দাঈ, তাবলীগ জামায়াতের ইউরোপের জিম্মাদার, বিমান ইঞ্জিনিয়ার হাজী আব্দুল মুকিত সাহেব আজ ১১ এপ্রিল ২০২০ খ্রিস্টাব্দে সকাল-১০:৩০ মিনিটে ডিউজবাড়ী হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তিনি তাবলিগীদের কাছে ‘ইঞ্জিনিয়ার সাব’ আবার বিশ্বের তাবলিগীদের কাছে তিনি ‘বাংলাদেশী ইঞ্জিনিয়ার হাজীসাব’ বলে পরিচিত ছিলেন। অনেকের কাছে শোনেছি, ঢাকায় অবস্থিত বাংলাদেশের তাবলিগের কেন্দ্রীয় মারকাজ কাকরাইল মসজিদের ডিজাইনার নাকি তিনি। এই মসজিদের বৈশিষ্ট্য মধ্যখানে কোন পিলার নেই, চারদিক এমনভাবে খোলা যে প্রচুর মানুষ জমা হলেও অক্সিজেন্সের অভাব হয় না, আবার মসজিদের যেকোন অংশ থেকে বক্তাকে দেখা যায়। কাকরাইল মসজিদের ইতিহাসে লেখা আছে, ১৯৬০-এর দশকে হাজী আব্দুল মুকিতের তত্ত্বাবধানে তিন তলা এ মসজিদটি পুনঃনির্মাণ করা হয়। (হাসান মোহাম্মদ : ২০১২। “তাবলীগ”। সম্পাদনা পরিষদ। বাংলাপিডিয়া (দ্বিতীয় সংস্করণ)। বাংলাদেশ: এশিয়াটিক সোসাইটি অফ বাংলাদেশ।) । আবার কেউ কেউ বলতেছেন, তিনি কাকরাইল মসজিদের ডিজাইনার নয়, তিনি হলেন ইংল্যান্ডের ডিউজব্যারি মসজিদের ডিজাইনার। আমার কাছে এবিষয়গুলো সঠিক কোন তথ্য নেই।

হাজী সাহেব আজীবন দ্বীনের দায়ী হিসাবে তাবলিগে দ্বীনের সাথে কাজ করেছেন। কালেমার দাওয়াতই ছিলো তাঁর জীবনের মূল কর্মসূচী। মানুষের প্রতি তাঁর মনে নবীওয়ালি অনেক দরদ ছিলো। মানুষকে কীভাবে জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষা করা যায় তা ছিলো তার মূল পেরেশানি। দ্বীনের কাজের মধ্যে রেখেই মহান আল্লাহপাক তাঁকে নিয়েগেছেন তাঁর কাছে। আমরা দোয়া করি, আল্লাহ যেন হাজী সাহেবকে জান্নাতুল ফেরদাউস দান করেন।