বাংলাদেশের ক্বারী সাদ সাইফুল্লাহ মাদানীকে তারাবী পড়াতে ফের নিচ্ছ -সৌদি আরব

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

মে ০১ ২০১৯, ১১:০০

 

বছর ঘুরে আবারো আসছে পবিত্র রমজান মাস। রমজানে তারাবি এবং শেষ রাতে তাহাজ্জুদ নামাজের ইমামতির জন্য অংশ নিতে যাচ্ছেন সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী। যার পরিচয় তিনি নিজেই বহন করেন, যিনি বাংলাদেশের হয়ে সর্বপ্রথম সৌদী আরবের জাতীয় চ্যানেল আলিফ আলিফ এফ এম রেডিওতে তিলাওয়াত করেন। মুসলিম বিশ্বের এক জনপ্রিয় নাম আল্লামা ইসহাক মাদানী রহ. এর একমাত্র সাহেবজাদা, সর্ববৃহত ইসলামী প্রিন্ট মিডিয়া তাবলীগ বার্তার সম্পাদক, বিশ্বনন্দিত ক্বারী শায়েখ সাদ সাইফুল্লাহ মাদানীকে মসজিদে তামিমদারির ইমাম হিসেবে এ বছরও নিচ্ছেন সৌদি আরব।

দেশটির ঐতিহাসিক একটি শহর এবং ইসলামে খুব আলোচিত প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সা. এর জীবনের সাথে সম্পৃক্ত, একটি শহর হচ্ছে “তায়েফ” সেখানেই অবস্থিত মসজিদে তামীম। সৌদী প্রবাসী আব্দুর রহমান বিন সামাদ জানান, যখন শায়েখ তারাবী পড়ান আমাদের বঙ্গালীদের আনন্দ এবং গর্ভে বুকটা ভরে উঠে।

তিনি বলেন, মুসলিম বিশ্বে এখন বাংলাদেশ এক বিপ্লবের নাম, যা সম্পাদন হচ্ছে আমাদের ছোট বড় কোরআনের শায়েখদের মাধ্যমে । সরকার যদি তাদের পাশে থাকে এদের মাধ্যমে বিশ্ব মুসলিমদের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও নিবিড় ও সুদৃঢ় হবে বলে আশাবাদী।

বিখ্যাত সাহাবী হযরত আব্দুর রহমান ইবনে আউফ রাযি. এর বংশভুত প্রিন্স শায়েখ ইবরাহীম বিন হামীদ বিন হুমায়ীদ সাহলিহিল আউফ এর শাগরেদ শাইখ ফয়সাল বলেন, সৌদি আরবের শরিয়াহ বোর্ড সদস্যগণের আস্থা ভালোবাসা বাংলাদেশের হাফেজদের প্রতি অনেক বেশী। পবিত্র কোরআনকে অন্তরে লালনসহ ইসলামের গভীর এবং সঠিক জ্ঞানে জ্ঞানী যারা। সাদ সাইফুল্লাহ মাদানীর সফর জুড়ে একসাথে থাকবে বলেও জানান তিনি।

আমরা সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী থেকে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাইলে তিনি বলেন, অসুস্থতার কারণে ডা. এর তত্তাবাধনে আছেন তিনি, বিভিন্ন টেস্টের পর এখন টিটমেন চলছে, অবস্থা স্বাভাবিক হলে ডা. এর পরামর্শক্রমে ফ্লাইট নিশ্চিত করবেন বলে জানিয়েছেন। সর্বশেষ দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন যেন সুস্থতার সাথে বাংলাদেশের মান রক্ষা করতে পারেন।

উল্লেখ্য, চাঁদ দেখার উপর আগামী ৭ অথবা ৮ মে থেকে শুরু হবে পবিত্র মাহে রমজান।