খৃষ্টান ধর্মে শনিবারে লেখা মানা তাই শিক্ষাবোর্ড একমাত্র রিকি’র পরীক্ষা নিবে রাতে

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

ফেব্রুয়ারি ০২ ২০১৯, ১২:১০

একুশে জার্নাল ডেস্ক: খ্রিস্টান ধর্মের ‘সেভেন্থ ডে অ্যাডভান্টিস্ট’ সম্প্রদায়ের রিকি হালদারের বিশেষ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে যশোর শিক্ষা বোর্ড তাকে রাতে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দিয়েছে। যশোর শিক্ষা বোর্ডের ইতিহাসে রাতে এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার ঘটনা এটিই প্রথম।

আজ শনিবার সকাল ১০টা থেকে সারা দেশে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হলেও কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পরীক্ষার্থী রিকি হালহাদারের পরীক্ষা শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়। চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।

তবে যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল ১০টা থেকে পরীক্ষা কক্ষে অবস্থান করছে রিকি।

আবেদনে রিকি জানান, শনিবার দিনের বেলা তার সম্প্রদায়ের মানুষের কোনো কিছু না লেখার জন্য ধর্মীয় বিধান রয়েছে। এ বিষয়টি তুলে ধরে রিকি শনিবার অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষাগুলো রাতে নেওয়ার জন্য বোর্ড বরাবর আবেদন করে।

পরীক্ষা সন্ধ্যায় শুরু হলেও বোর্ডের শর্ত অনুযায়ী অন্য সব পরীক্ষার্থীর মতো সকাল সাড়ে ৯টায় রিকি হালদারও কুমারখালী উপজেলার কুমারখালী এম এন পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে।

কেন্দ্র সচিব ফিরোজ মোহাম্মদ বাসার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বোর্ডের নির্দেশনা মোতাবেক রিকি পরীক্ষা হলে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র নিয়ে বসে থাকবে। পরীক্ষা শেষে অন্যরা বাইরে বের হলেও রিকি কেন্দ্রেই থেকে যাবে। নিজের পরীক্ষার জন্য ৬টা পর্যন্ত রিকি কেন্দ্রেই থাকবে।

এ সময়ের মধ্যে পরীক্ষা কক্ষের বাইরে যাওয়া বা কারো সঙ্গে যোগাযোগও করতে পারবে না রিকি। পরীক্ষা শেষে অর্থাৎ রাত ৯টার আগে রিকি কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করতেও পারবে না। এ সময় বোর্ডের পক্ষ থেকে তাকে খাবার ও পানি সরবরাহসহ শৌচাগার ব্যবহারে শর্তসাপেক্ষে অনুমতি দিয়েছে। বোর্ড নিযুক্ত প্রতিনিধি সব সময় তার সঙ্গে থাকবে।

কেন্দ্র সচিব ফিরোজ মোহাম্মদ বাসার জানান, রিকি হালদারের পরীক্ষা গ্রহণের সব ব্যবস্থা করা হয়েছে। কেন্দ্র সচিব, হল সুপার, সহকারী হল সুপার, কক্ষ পরিদর্শক ও পুলিশসহ দায়িত্বশীল সবাইকে রিকির পরীক্ষা গ্রহণের দায়িত্ব পালন করবেন।

রিকি হালদার কুমারখালীর পারফেক্ট ইংলিশ ভার্সন স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। পরবর্তী শনিবারের পরীক্ষার ক্ষেত্রেও রিকি একই সুবিধা পাবে।

এতে রিকি খুবই খুশি। তিনি জানায়, বোর্ড এই সুযোগ না দিলে তিনি পরীক্ষা দিতে পারত না।

আজ পরীক্ষা শুরুর আগে রিকি হালদার সাংবাদিকদের বলেছে, ‘আমরা সেভেন্থ ডে অ্যাডভান্টিস্ট সম্প্রদায়ের মানুষ। আমরা খ্রিশ্চিয়ান। ধর্মের কারণে আমাদের শনিবার দিনে পরীক্ষা দিতে বাধা রয়েছে। আমরা শনিবার উপাসনা করি। শনিবার দিন আমরা কোনো কাজ, পড়াশুনা, লেখালেখি, কেনাকাটা সব কিছু থেকে আমরা বিরত থাকি। তাই পরীক্ষাটা সকাল বেলা দিতে পারছি না। সকাল বেলার বদলে সূর্য ডোবার পরে সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরীক্ষা দেব, ৩ ঘণ্টা।’