কওমি মাদ্রাসা খুলতে সরকারি প্রজ্ঞাপণ জারি: মানতে হবে ২২ নির্দেশনা

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

সেপ্টেম্বর ০৭ ২০২১, ২২:৩৪

কওমী মাদরাসার ক্লাসরুম

কওমি মাদরাসার শিক্ষাকার্যক্রম চালু করতে প্রজ্ঞিপন জারি করেছে সরকার। গতকাল ৬ সেপ্টেম্বর (সোমবার) ২০২১ তারিখে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

সরকারি এ প্রজ্ঞাপন কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ শিক্ষা অথরিটি আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ এর ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে সংস্থার অফিস সম্পাদক মাওলানা অছিউর রহমান-এর বরাতে প্রকাশ করা হয়েছে। এতে মাদরাসাসমূহের শিক্ষাকার্যক্রম চালুকরণের কথা বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘উপযুক্ত বিষয়ের প্রেক্ষিতে জানানাে যাচ্ছে যে, কোভিড-১৯ এর কারণে ১৮/০৩/২০২০ খ্রি. থেকে দেশের সকল মাদরাসায় শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। দেশের সকল মাদরাসাসমূহকে তাদের শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের জন্য স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ স্বাস্থ্যসম্মতভাবে প্রস্তুত করার জন্য সূত্রোক্ত স্মারকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছিল। বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করায় মাদরাসা খােলার সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্ত সংযুক্ত গাইড লাইন এর নির্দেশনা ছাড়াও মাদ্রাসায় নিম্নোক্ত কার্যক্রমসমূহ ০৯/০৯/২০২১ খ্রি. এর মধ্যে যথাযথভাবে বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার জন্য অনুরােধ করা হলাে।

কার্যক্রমসমূহ:
১. মাদ্রাসার প্রবেশ পথসহ অন্যান্য স্থানে কোভিড-১৯ অতিমারি সম্পর্কিত সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে করণীয় বিষয়সমূহ ব্যানার বা অন্য কোন উপায়ে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা;
২. মাদ্রাসার প্রবেশ পথে সকল শিক্ষক-কর্মচারী-শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের তাপমাত্রা পরিমাপক যন্ত্রের মাধ্যমে নিয়মিত তাপমাত্রা মাপা ও তা পর্যবেক্ষণ করার ব্যবস্থা করা;
৩. শিক্ষার্থীদের ভিড় এড়ানাের জন্য মাদ্রাসার সবগুলাে প্রবেশ পথ ব্যবহার করা। যদি কেবল একটি প্রবেশ পথ থাকে সেক্ষেত্রে একাধিক প্রবেশ পথের ব্যবস্থা করা;
৪. মাদ্রাসা খােলার প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের আনন্দঘন পরিবেশে শ্রেণি কার্যক্রমে স্বাগত জানানাের ব্যবস্থা করা;
৫. মাদ্রাসা খােলার প্রথম দিন শিক্ষার্থীরা কিভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাদ্রাসায় অবস্থান করবে এবং বাসা থেকে যাওয়া-আসা করবে সেই বিষয়ে তাদেরকে শিক্ষণীয় ও উদ্বুদ্ধকরণ ব্রিফিং প্রদান করা।
৬. মাদ্রাসার একটি কক্ষ প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থাসহ আইসােলেশন কক্ষ হিসেবে প্রস্তুত রাখা;
৭.মাদ্রাসার সকল ভবনের কক্ষ, বারান্দা, সিড়ি, ছাদ এবং আঙ্গিনা যথাযথভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা;
৮. মাদ্রাসার সকল ওয়াশরুম নিয়মিত সঠিকভাবে পরিস্কার রাখা এবং পর্যাপ্ত নিরাপদ পানির ব্যবস্থা করা;
৯. মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারী এবং অভিভাবক প্রবেশের সময় সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালন করা;
১০. মাদ্রাসার সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীর সঠিকভাবে মাস্ক (সম্ভব হলে কাপড়ের মাস্ক) পরিধান করার বিষয়টি নিশ্চিত করা। প্রয়ােজনে মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ নিজ দায়িত্বে মাস্ক সরবরাহ করা;
১১. মাদ্রাসার বিভিন্ন স্থানে সাবান বা হ্যান্ডওয়াশ দ্বারা হাত ধােয়ার এমন ব্যবস্থা করা যাতে শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ঢােকার আগে সবাই সাবান দিয়ে হাত ধুতে পারে;
১২. শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের বসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করা। এক্ষেত্রে পারস্পারিক ৩ (তিন) ফুট শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখার ব্যবস্থা করা;
১৩. মাদ্রাসার খেলার মাঠ, ড্রেন, বাগান ও ঝোঁপঝাড় যথাযথভাবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা এবং কোথাও পানি জমে না থাকে তা নিশ্চিত করা;
১৪. সরকারের নির্দেশনা মােতাবেক মাদ্রাসাসমূহে শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির সংখ্যা নিরুপণ করা;
১৫. সরকারের নির্দেশনা মােতাবেক পাঠদান সময়কাল এবং ক্লাস সংখ্যা নির্ধারণ করা;
১৬. ক্লাস চলাকালীন মাদ্রাসায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও অন্যান্যদের অতিরিক্ত সমাগম না করা;
১৭. কোভিড-১৯ অতিমারিজনিত সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালন করা হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ ও বাস্তবায়নের জন্য মাদ্রাসার শিক্ষক ও কমিটির সদস্যবৃন্দের সমন্বয়ে মনিটরিং টীম গঠন করা এবং নিয়মিত প্রতিবেদন প্রেরণ করা;
১৮. প্রয়ােজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে আনন্দঘন শিখন-শিক্ষনের মাধ্যমে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালিত করা;
১৯. মাদ্রাসার প্রয়ােজনীয় অবকাঠামােগত মেরামত, বৈদ্যুতিক মেরামত এবং পানি সংযােগজনিত মেরামত সম্পন্ন করা;

২০. মাদ্রাসার গভর্ণিং বডি/ ম্যানেজিং কমিটি ও অভিভাবকদের সাথে সভা করে এতদসংক্রান্ত বিষয়ে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
২১. সকল শিক্ষক, কর্মচারী এবং আঠারাে বছর ও তদুর্ধ্ব বয়সী শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ নিশ্চিত করা;
২২. প্রয়ােজনে স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শ/সহায়তা গ্রহণ করা;