ওয়াজ মাহফিল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা সংবিধান বিরোধী : মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

এপ্রিল ০৫ ২০১৯, ২২:৩৫

একুশে জার্নালঃ  হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেছেন, ওয়াজ মাহফিল ও বক্তাদের নিয়ন্ত্রণের সরকারি চেষ্টা দেশের সংবিধান, গণতন্ত্র ও সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানের ধর্মীয় চেতনা ও মুল্যবোধ বিরোধী।

আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

মাওলানা ইসলামাবাদী বলেন, যদি কোনো বক্তার আলোচনায় সরকার বিব্রত হন, তবে সরকার তাকে সতর্ক করতে পারেন এবং বয়ানের ব্যাখ্যা চাইতে পারেন। কিন্তু তা না করে ঢালাওভাবে ওয়াজ মাহফিলকে দোষারোপ করা গভীর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বহন করে।

তিনি বলেন, ওয়াজ মাহফিলে ঈমান ও ইসলামের কথা সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরা হয়। ওয়াজ মানুষকে সদুপোদেশ দেয়া ও কল্যাণের পথে ডাকার সমাজিক আয়োজন ও ইসলামি সংস্কৃতি। আম্বিয়ায়ে কেরাম সাধারণ মানুষকে সত্যের পথে যে আহবান জানাতেন তারই প্রচলিত রূপ।

মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী আরো বলেন, বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। এ দেশের ৯০ ভাগ মানুষ বুকে ইসলামকে লালন করেন। দেশের রাষ্ট্রধর্মও ইসলাম। সংবিধানে ধর্মীয় স্বাধীনতা রয়েছে। ওয়াজ মাহফিল করা এবং ইসলামের কথা বলতে পারা সংবিধান প্রদত্ত মানুষের ধর্মীয় অধিকার।

মাওলানা ইসলামাবাদী বলেন, মাহফিলে আলেমসমাজ হালাল হারাম, ন্যায় অন্যায়, নীতি আদর্শ, নৈতিক চরিত্র, দেশ ও মানবতার কল্যান, নারীর নিরাপত্তা,মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত শান্তিময় সমাজ প্রতিষ্ঠায় কুরআন হাদিসের আলোকে গুরুত্বপূর্ণ বয়ান রাখেন। এর দ্বারা দেশ ও নাগরিকসমাজ উপকৃত হচ্ছে। দেশে শান্তি ও মানুষের চরিত্র সংশোধনে আলেমসমাজের অবদান চির স্মরণীয়।