আমিরাতে প্রশংসায় ভাসছেন শিশুকে উদ্ধারকারী বাংলাদেশী

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জানুয়ারি ১৭ ২০১৯, ২০:০৬

মাহমুদুল হাসান আকাশ,আমিরাত থেকে: আরব আমিরাতের জ্বলন্ত ভবনের শিশুকে বাঁচিয়ে জাতীয় সম্মান পেয়ে প্রশংসায় ভাসছেন ৫৭ বছর বয়সী প্রবাসী ফারুখ মিয়া।

বিশ্বের প্রায় সব দেশের মানুষের কাছেই বাংলাদেশ সুপরিচিত। কারো জন্য দেশের মানসম্মান নষ্ট হয় আবার কারো কর্মের জন্য বাংলাদেশীর গৌরব মানসম্মান আকাশ ছোয়া হয় যায়।
এমনি এক অসাধারণ দক্ষতা দেখিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশী ৫৭ বছর বয়সের ফারুক ইসলাম নুরুলহক। আরব আমিরাতের পত্রিকার শিরোনামে বাংলাদেশি এই ব্যাক্তির ছবি এবং সম্মানের সাথে তার নাম স্পষ্ট করে দিলেন। শত লোকেদের ভিড়ের মধ্যে থেকে একমাত্র তিনিই দৌড়িয়ে জ্বলন্ত বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলার জানালা থেকে ছোড়ে ফেলা ৩ বছরের শিশুটিকে সহসাই লুফে ধরলেন এবং সফল ভাবে কোন প্রকার আঘাত ছাড়াই উদ্ধার করতে সক্ষম হলেন।

ছেলেটির জীবন রক্ষা করার জন্য মঙ্গলবার আরব আমিরাতের জাতীয় দৈনিক আজমান সিভিল ডিফেন্স কর্তৃক বাংলাদেশী এই ব্যক্তিকে সম্মানিত করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আমি দূর থেকে দেখছি জ্বলন্ত বিল্ডিংয়ের ধুয়ার মধ্যে থেকে এক মহিলা তার সন্তানকে বাঁচানোর জন্য জানালা দিয়ে সাহায্যের জন্য চিৎকার করছে । সেখানে বিশাল মানুষের ভিড় ছিল কিন্তু কেউ তাকে উদ্ধার করার চিন্তা করলো না। কিন্তু আমি এ দৃশ্য দেখে নিজেকে বিরত রাখতে পারলাম না। এগিয়ে গিয়ে দ্বিতীয়তলায় থাকা ওই মহিলার দিকে তাকালাম, মহিলাও আমার দিকে তাকালো। তার পর বাচ্চাটিকে আমার হাতে উপর থেকে আমার হাতে ছোড়ে দিলো’।
বাচ্চাটি কোন প্রকার আঘাত পাওয়া ছাড়াই রক্ষা পেলো।

ফারুক মিয়া খালিজ টাইমসকে আরো জানান তিনি এক বন্ধুর সাথে দেখা করার জন্য পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন, তিনি একটি মুদি দোকানে কাজ করেন সেখানে।
শনিবার রাতে নুয়াইমিয়ায় তিন তলার এই অ্যাপার্টমেন্ট ভবনটি ভীষণভাবে আগুন লেগে কালো ধোঁয়ায় ভরে যায়। জানালা ছাড়া বের হওয়ার আর কোন উপায় ছিল না ।

মহিলার স্বামী মোহাম্মাদ সাকিব বলেন, ঘটনাটি যখন ঘটেছিল তার স্ত্রী রুবেনা দরজা দিয়ে বের হতে পারেন নি। আগুন ও ভারী ধোঁয়া থেকে নিজে ও সন্তানকে বাঁচানোর চিন্তা করে জানালা দিয়ে বাচ্চাকে ছোড়ে ফেলেন। এবং নিজেরা একটি পার্কিং গাড়ির উপরে লাফিয়ে পরেন। তার স্ত্রী গুরতর আহত অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউ তে আছেন।

অগ্নিকাণ্ডের কারণ হিসেবে বারান্দায় অবস্থিত মেশিনে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটগুলিতে আগুন দেখা দেয়, যার ফলে পুরো ভবনটিতে ধোঁয়া দ্রুত বিস্তার ঘটে।