আন্তর্জাতিক সংবাদপত্রে বাবরি মসজিদ মামলার রায়

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

নভেম্বর ১০ ২০১৯, ১৪:১৯

বাবরি মসজিদ মামলার রায়ের খবর বিশ্বের অধিকাংশ সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় স্থান পেয়েছে। অধিকাংশ সংবাদপত্র এই রায় ভারতকে ধর্মনিরপেক্ষ ভিত্তি থেকে সরিয়ে হিন্দুত্বের পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পথে একটি জয় হিসেবে দেখছে।

মার্কিন দৈনিক ‘নিউ ইয়র্ক টাইমস’ লিখেছে, ‘কয়েক শতাব্দীর বিতর্কিত জমি নিয়ে শনিবার ভারতের সুপ্রিমকোর্ট হিন্দুদের পক্ষে রায় দিয়েছে। মোদী এবং তার অনুগামীরা যে নতুন করে ভারতকে ধর্মনিরপেক্ষ ভিত্তি থেকে সরিয়ে হিন্দুত্বের পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছে, তার পক্ষে এটা বড় জয়।’

‘ওয়াশিংটন পোস্ট’ও একই কথা বলেছে। পত্রিকাটি লিখেছে, এভাবে ভারতকে ‘ধর্মনিরপেক্ষ’র বদলে ‘হিন্দু’ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে গেলে বিতর্ক তৈরি হতে পারে।

ব্রিটিশ দৈনিক ‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর ব্যাখ্যাও প্রায় একই রকম। অযোধ্যা রায়কে মোদীর লোকসভা ভোটে জয়ের সঙ্গে তুলনা টানা হয়েছে।

পাকিস্তানি দৈনিকগুলিতেও স্বাভাবিক ভাবেই প্রাধান্য পেয়েছে অযোধ্যা রায়ের খবর। অধিকাংশ সংবাদপত্র ও টিভিতে শিরোনামে অযোধ্যার বিতর্কিত জমির রায়।

‘দ্য ডন’ আশঙ্কা প্রকাশ করা করেছে, সুপ্রিম কোর্টের রায় ‘ভারতের হিন্দু-মুসলিম সম্পর্কে তাৎপর্যপূর্ণ প্রভাব ফেলতে পারে।’ জিও টিভির রিপোর্টে অবশ্য শুধু রায়ের অংশই বেশি উল্লেখ করা হয়েছে। ‘দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’ অযোধ্যার রায়কে ‘হিন্দু জাতীয়বাদী এবং প্রধানমন্ত্রী মোদীর জয়’ বলে উল্লেখ করেছে।

উল্লেখ্য, বাবরি মসজিদের বিতর্কিত ভূমি হিন্দুদের দিয়ে দেওয়ার রায় দিয়েছে ভারতের হাইকোর্ট। পাশাপাশি বিকল্প স্থানে মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলিমদের ৫ একর জমি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

শনিবার (৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় বাবরি মসজিদ মামলার রায় ঘোষণা শুরু হয়। ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেন।