৪ দফা দাবীতে সিলেটে বাসদের বিক্ষোভ মিছিল

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জুলাই ১৪ ২০১৯, ১৮:১২

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল, বন্যা দুর্গত এলাকায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা, রেলের ঢাকা-সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে ডাবল লাইন চালু করা, ওসমানী মেডিকেলের চিকিৎসার পর্যাপ্ত আয়োজন নিশ্চিত করা সহ ৪ দফা দবিতে বাসদ(মার্কসবাদী) সিলেট জেলা শাখা রোববার এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে।

জিন্দাবাজার থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে সিলেট নগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিটি পয়েন্টে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। বাসদ(মার্কসবাদী) সিলেট জেলার সদস্য এ্যাডভোকেট হুমায়ুন রশীদ সোয়েবের সভাপতিত্বে এবং সুশান্ত সিনহার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক মুখলেছুর রহমান, বাসদ(মার্কসবাদী) সিলেট জেলার সদস্য রেজাউর রহমান রানা, রুবাইয়াৎ আহমেদ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট সিলেট নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদিয়া নোশিন তাসনিম প্রমুখ.

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিকভাবে গত ১ জুলাই গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যখন গ্যসের মূল্য প্রায় ৫০শতাংশ কমেছে, এবং আমাদের দেশের গ্যাস কোম্পানিগুলোর মধ্যে কোন একটিও লোকসানের মধ্যে নেই, তারপরও মূল্যবৃদ্ধি করা হলো। শুধু তাই নয়, দেশের প্রচলিত আইনে একই অর্থ বছরে দু’বার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিধান নেই। শুধু বাসা বাড়ি নয়, শিল্প প্রতিষ্ঠান, পরিবহনসহ যে সকল খাতে গ্যাস ব্যাবহৃত হয় সে সকল ক্ষেত্রেই এই মূল্যবৃদ্ধি করেছে। এর ফলে বাড়ি ভাড়া, গাড়ি ভাড়াসহ নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পণ্যের দাম বাড়বে। তাই অবিলম্বে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে। ইতিমধ্যে অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের কারণে সারাদেশে যে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতে জন জীবন আরো দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে। সরকারের উচিত দ্রুত বন্যা দূর্গত এলাকায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

বক্তারা ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয় করতে হাটে হাটে সরকারি ক্রয়কেন্দ্র চালু করা ও পর্যাপ্ত খাদ্যগুদাম, কোল্ডস্টোরেজ নির্মাণ করার দাবি জানান। কিছুদিন আগে বরমচালে ঘটে যাওয়া ট্রেন দুর্ঘটনা আবারও সিলেটের সাথে সারাদেশের রেল যোগাযোগের বেহাল দশা প্রমাণ করল। আমাদের দলের পক্ষ থেকে বারবার দাবি করার পরেও রেল লাইন সংস্কার করা হয়নি। তাই অবিলম্বে রেলের ঢাকা-সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে ডাবল লাইন চালু করে ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধি করে নতুন বগি সংযোজন করতে হবে।

এছাড়া চিকিৎসা সেবার দিক দিয়েও সিলেট পিছিয়ে আছে। বক্তারা সিলেট ওসমানী মেডিকেলের চিকিৎসার পর্যাপ্ত আয়োজন নিশ্চিত করা সহ পূর্ণাঙ্গ কার্ডিয়াক সেন্টার চালুর দাবি জানান।