সুস্থ ধারার রাজনীতি চর্চার মাধ্যমেই জাতীয় অগ্রগতি সম্ভব: ইসলামী যুব আন্দোলন

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

নভেম্বর ০১ ২০২১, ১৯:৫৭

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান বলেন, সুস্থ ধারার রাজনীতি বিনির্মাণে সকল সংগঠনের যুব নেতাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। অসুস্থ রাজনীতি চর্চার ফলে দেশের প্রতিটি সেক্টর আজ বিপর্যস্ত ও বিধ্বস্ত। এই অবস্থা থেকে উত্তরণে সুস্থ ধারার রাজনীতির চর্চার কোনই বিকল্প নেই। তাই সুস্থ ধারা চর্চার মাধ্যমে জাতীয় রাজনীতিতে গুণগত পরির্বতন আনা এখন সময়ের দাবী।

আজ ১ নভেম্বর ২০২১ (সোমবার) বিকাল ৩টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে ইসলামী যুব আন্দোলন আয়োজিত “সুস্থ ধারার রাজনীতির অপরিহার্যতা”- শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন-এর সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি আরো বলেন, দেশের সার্বিক অবস্থা নিয়ে আমরা গভীর উদ্বিগ্ন, এ অবস্থায় একটি দেশ চলতে পারে না। ক্ষমতাসীন সরকারের অতি দলীয়করণের ফলে দেশের প্রতিটি সাংবিধানিক কাঠামো আজ ভেঙে পড়ার উপক্রম। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য যুব নেতৃবৃন্দকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে।

কেন্দ্রীয় সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, কলুষিত এই রাজনৈতিক ব্যবস্থার পরিবর্তনে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। আমরা চাই রাজনৈতিক সহাবস্থান। সভাপতি আরো বলেন, করোনার সংক্রমণ স্বাভাবিক হওয়ার পরে সরকারের উচিত ছিল মানুষের জীবন-জীবিকার প্রাধান্য দেওয়া। কিন্তু সরকার এ বিষয়ে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম এখন সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। আর রাতের ভোটে নির্বাচিত কা-জ্ঞানহীন সরকারের কাছ থেকে এর চেয়ে ভালো কিছু আশা করা যায় না। তাই আমাদের ছোটখাট ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের গণমানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে সুস্থ ধারার রাজনীতির চর্চা করতে হবে।

সংগঠনের সেক্রেটারী জেনারেল আতিকুর রহমান মুজাহিদের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইসলামী যুব আন্দোলন এর সাবেক সভাপতি কেএম আতিকুর রহমান, এবং ভ্রাতৃপ্রতিম যুব সংগঠনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিকল্প যুব ধারা কেন্দ্রীয় সভাপতি আসাদুজ্জামান বাচ্চু, ন্যাশনাল পিপলস যুব পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আল মিশু, এবি যুব পার্টির প্রধান সমন্বয়ক এবিএম খালিদ হাসান, বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের আহবায়ক মোঃ আতাউল্লাহ, যুব আন্দোলনের আহবায়ক হাবিবুন নবী সোহেল, যুব জাগপার আহবায়ক নজরুল ইসলাম বাবলু, ইসলামী যুব খেলাফত কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটির সদস্য মাওলানা খোরশেদ আলম, যুব আন্দোলন (এনডিএম) এর সদস্য সচিব হাবিবুর রহমান হাবিব, যুব ধারা কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা সরওয়ার, বাংলাদেশ খেলাফত যুব আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মুফতি আল আমিন, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিশের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফজলুর রহমানসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মনসুর আহমদ সাকি, কেন্দ্রীয় আইন সম্পাদক এম হাছিবুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মুহাম্মাদ ইলিয়াস হাসান ও ঢাকা মহানগর উত্তর সাধারণ সম্পাদক সাইফুল্লাহ আল খালিদ প্রমুখ।