সাতক্ষীরায় প্রবাসীর বাড়িতে ফিল্মি স্টাইলে দুর্ধর্ষ চুরি

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জুন ১১ ২০১৯, ১৭:১০

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলায় বাদঘটা গ্রামের প্রবাসী জালাল উদ্দীনের বাড়িতে ফিল্মি স্টাইলে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে ৷

ঘটনা সুত্রে জানা গেছে, জনশূন্য বাসার চারিদিকে লাইট জ্বালানো অবস্থায় গত ৪/৬/১৯ তাং রাতে ক্লপসিবল গেটের দুইটি সহ ১০/১১ টি তালা ভেংগে তিনটি বেডরুম এবং ঘরের ষ্টিল আলমারি, ওয়ারড্রব, স্টিলের বাক্স ভাংচুর করে তছনছ করে কিছু দামী জিনিসপত্র এবং স্বর্ণ রুপার কিছু গহনা নগদ টাকাসহ প্রায় তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকার মালামাল চুরি হয়েছে ৷

ইতিপূর্বে শ্যামনগর সদরে বিভিন্ন স্থানে গ্রীল কেটে এবং তালা ভাংচুর করে স্বর্ণ অলংকারসহ মোবাইল কম্পিউটার চুরি হয়েছে। এবার প্রবাসী জালাল উদ্দীনের বাসায় হানা দিয়েছে চোরেরা।

এলাকাবাসী জানান চোরগুলো এতোটাই প্রশিক্ষিত যে, যে কোনো লকার, তালা, গ্রীল তাদের কাছে কিছুই না, যে-কোন সময় সুরক্ষিত ভবনে তারা অনায়াসে প্রবেশ করতে পারে। চোরের জ্বালায় শান্তিতে ঘুমাতে পারছে না শ্যামনগরবাসী।

ভুক্তভোগীরা জানান, একের পর এক ফিল্মি স্টাইলে চুরি হলেও কিন্তু আজও এই চোরগুলা ধরাছোঁয়ার বাইরে! কেনইবা চোর ধরা পড়ছে না এমন প্রশ্ন সবার মনে৷

এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কেনো ধরা পড়ছেনা এই চোর? এই চোর কারা? আমরা সাধারণ মানুষ, আমরা কি নিজের ঘরবাড়িগুলো সাথে নিয়ে ঘুরবো?

মুহুর্তের ভিতরে বাসায় ঢুকে চুরি করে নির্বিঘ্নে পালিয়ে যাচ্ছে এরা ৷ স্থানীয়দের প্রতি শ্যামনগরের সচেতন মহলের অনুরোধ- নির্ভয়ে চোর বা সন্দেহভাজন ব্যক্তির তথ্য প্রশাসন বা জনপ্রতিনিধিদের দিয়ে চোর ধরার কাজে সহযোগিতা করুন ৷

এই প্রশিক্ষিত চোরদের কবল থেকে রক্ষা পেতে এবং প্রবাসী জালাল উদ্দীনদের বাসায় দুর্ধর্ষ চুরির মত ঘটনা আর যেন না ঘটে, এজন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করতে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন শ্যামনগরবাসী ৷