লাইনে দাঁড়াতে বলায় চিকিৎসক ও নার্সকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

ডিসেম্বর ৩০ ২০২০, ২২:১১

ফরিদপুরের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাম-রুবেলার টিকা নিতে আসা এক শিশুর অভিভাবককে লাইনে দাঁড়াতে বলায় চিকিৎসক ও নার্সকে মারধর করা হয়েছে। ভাংচুরও করা হয়েছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আসবাবপত্র।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুরে এ ঘটনায় থানায় মামলার পর তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, দুপুরে নগরকান্দা পৌরসভার সাবেক মেয়র প্রয়াত রায়হান উদ্দিন মিয়ার নাতনিকে হাম-রুবেলার টিকা দিতে হাসপাতালে নিয়ে আসেন শিশুর মা। সেখানে ভিড় থাকায় কর্তব্যরত নার্স রেখা খানম তাকে লাইনে দাঁড়াতে বলেন। এতে তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে স্বজনদের ডেকে আনেন। ওই নারীর ভাই আলামিন মিয়া ও তার ১০-১২ জন সহযোগী কর্তব্যরত নার্স রেখা খানমকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। তাকে রক্ষায় এগিয়ে এলে মেডিকেল অফিসার জ্যোতির্ময় চৌধুরীকেও মারধর করা হয়।

এ সময় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের অফিস সহকারী ইখলাছ হোসেন মারধরের ঘটনা মোবাইল ফোনে ভিডিও করার চেষ্টা করলে তাকেও পিটিয়ে আহত করেন হামলাকারীরা। খবর পেয়ে নগরকান্দা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে অন্যরা পালিয়ে গেলেও পুলিশ আলামিন মিয়া, আনোয়ার হোসেন ও রুবেল মিয়া নামের তিন যুবককে গ্রেফতার করে।

স্থানীয়রা জানান, গ্রেফতাররা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পরিচয়ধারী। এ ব্যাপারে মেডিকেল অফিসার ডা. জ্যোতির্ময় চৌধুরী বাদী হয়ে নগরকান্দা থানায় মামলা করেন।

নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ সোহেল রানা জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারী তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. সিদ্দিকুর রহমান জানান, হামলার খবর পেয়ে দ্রুত সেখানে যাই। মামলার পর পরই পুলিশ তিন যুবককে গ্রেফতার করে।

তিনি আরও বলেন, আমরা নিরাপদ কর্মস্থল চাই। নিরাপদ পরিবেশে চিকিৎসাসেবা দিতে সবার সহযোগিতা চাই।