রাষ্ট্রীয়ভাবে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার বিকল্প নেই -মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানি

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

ফেব্রুয়ারি ১৫ ২০১৯, ১৪:৩২

কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে নিষিদ্ধ করার দাবী জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী। তিনি বলেন আহমাদীয়া মুসলিম জামাত মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সা. কে শেষ নবী হিসেবে গ্রহণ করে নাই। তাই তারা কাফের এবং তাদেরকে যারা কাফের হিসেবে মনে করে না তারাও কাফের। অতএব কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে, এর বিকল্প নেই। এটা সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের প্রাণের দাবি।

আজ শুক্রবার বাদ জুমা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে কাদিয়ানীদের কথিত ইজতেমা বন্ধ ও কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পৃথিবীর প্রায় সকল মুসলিম প্রধান দেশে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করা হয়েছে। অথচ বাংলাদেশে সরকারের প্রভাবশালী কতিপয় মন্ত্রী, ব্যক্তি ও প্রশাসনের ছত্র ছায়ায় কাদিয়ানীরা মুসলমানদের ঈমান বিধ্বংশ করার কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে। যা এদেশের নবী প্রেমিক তাওহীদি জনতা কোনোভাবেই বরদাশত করবে না।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে কাদিয়ানীদের অর্থ যোগানদাতা প্রাণ, আরএফএল সহ সকল পণ্য বর্জন করার আহ্বান জানান। সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী বলেন, কাদিয়ানীরা নিজেদের মুসলিম পরিচয় দিয়ে ইসলামী পরিভাষা ব্যবহার করছে, তাতে এদেশের মুসলমানরা ক্ষুব্ধ। একারনে রাজপথ উত্তপ্ত হয়ে যেকোনো সময় স্বাভাবিক পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে। এরুপ পরিস্থিতির জন্য সরকার দায়ি থাকবে।

বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব হাফেজ অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মাওলানা আরিফুল ইসলাম ও ছাত্র নেতা হাসিবুল ইসলাম প্রমুখ