মানবশূন্য ওসমানীনগরের প্রতিটি বাজার

মানবশূন্য ওসমানীনগরের প্রতিটি বাজার। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না কেউ। ফলে ওসমানীনগরের প্রতিটি এলাকাই নীরব। পুরোটাই বিরান হয়ে পড়ে আছে পুরো উপজেলা। সব সময়ের ব্যস্ত থাকা গোয়ালাবাজার, তাজপুর, দয়ামীর, কুরুয়াবাজারগুলো খাঁখাঁ করছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) ওসমানীনগরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ চিত্রই দেখা যায়। পুরো ওসমানীনগর জনশূন্য, নিস্তব্ধ। খুব প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছাড়া বন্ধ সবকিছুর দোকান। নেই কোনো যানবাহনও। সব মিলিয়ে এ যেন এক যুদ্ধাবস্থা। থমথমে চারপাশ। এ যুদ্ধ প্রাণঘাতী করোনার বিরুদ্ধে।

এতে জয়ী হতে হলে বাইরে নয়, ঘরে অবস্থান করাই অতি জরুরি। যারা আজ ঘরে, তারাই এ যুদ্ধের বীর। যে যার যার ঘরে অবস্থান নিয়েই নিশ্চিত করতে হবে সামাজিক বিচ্ছিন্নতা। আর তাতেই পরাজিত হবে কভিড-১৯ ভাইরাস। স্বাধীনতা দিবস হলেও,বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কোথাও তেমন জনসমাগম চোখে পড়েনি। কেউ বেরোচ্ছে না ঘর থেকে। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ বিভিন্ন সড়কে সড়কে টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী, পুলিশ সদস্যরা।

গোয়ালাবাজার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, যেখানে প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষের ভিড়, সেই বাজার শুনশান পড়ে আছে। কোথাও কেউ নেই। বন্ধ সব দোকান। একই অবস্থা উপজেলার অন্যান্য স্থানেও। এদিকে করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন বাজারে বাজারে পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করেও মানুষজনকে ঘরে অবস্থানের কথা প্রচার করা হচ্ছে।