বিজিবি সদস্যকে দা দিয়ে কোপানো ভারতীয় চোরাকারবারী গুলিতে নিহত

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

ডিসেম্বর ৩০ ২০২০, ০৮:৫৯

আবির আবরার:

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র গুলিতে এক ভারতীয় চোরকারবারী নিহত হয়েছেন। বিজিবি সদস্যদের উপর আক্রমণের প্রেক্ষিতে আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায় বিজিবি।

জানা যায়, মঙ্গলবার আনুমানিক ভোর ৪টায় গাজিরভিটার ডুমনিকুড়ায় পিলার নং ১১২৯-৪-এস এর ১৭০ গজ দক্ষিণ পাশে এবং ১১২৯/৮-টি বিডি থেকে আনুমানিক ৫০ গজ দক্ষিণে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতীয় সীমান্ত ডুমুরিয়া নদীর পাড়ে জনৈক রব মোড়লের একাশী বাগানে ৮/৯ জন চোরাকারবারীকে দেখে সূর্যপুর ক্যাম্পের টহলরত ইনচার্জ নায়েব সুবেদার খন্দকার আব্দুল হাই ও তার সঙ্গীয় বিজিবি সদস্যরা তাদেরকে দাঁড়াতে বলায় চোরাকারবারীরা ধারালো দা দিয়ে কোপ মারলে বিজিবি সদস্য সিপাহী মেহেদী হাসানের মাথায় ডান পাশে লেগে রক্তাক্ত জখম হয়। আত্মরক্ষার্থে অন্যান্য চোরাকারবারীদের লক্ষ্য করে গুলি করলে তাদের গুলির আঘাতে টেডিয়ন জি মোমিন (৪৬) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় এবং অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুটি দা, একটি প্লাস্টিকের বাজারের ব্যাগে ভারতীয় অফিসার চয়েজ ১২ বোতল মদ, ২৬০ পিচ ইয়াবা, একটি ভারতীয় জাতীয় পরিচয়পত্র, ইনকামটেক্স ডিপার্টম্যান্ট কর্তৃক একটি কার্ড, স্ট্রেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার গ্রিন রেমিট কার্ড, একটি মোবাইল ফোন ও নগদ ৬১৬০ রুপি পাওয়া যায়।

এবিষয়ে বিজিবি সদর দফতর ময়মনসিংহের সিইও ল্যাফটেনেন্ট কর্ণেল তৌহিদ মাহমুদ জানান, সূর্যপুর বিজিবি ক্যাম্পের টহলরত ইনচার্জ নায়েব সুবেদার খন্দকার আব্দুল হাই ও তার সঙ্গীয় বিজিবি সদস্যরা চোরাকারবারীদের দাঁড়াতে বলায় তারা ধারালো দা দিয়ে কোপ মারলে বিজিবি সদস্য সিপাহী মেহেদী হাসানের মাথায় ডান পাশে লেগে রক্তাক্ত জখম হয়। আত্মরক্ষার্থে অন্যান্য চোরাকারবারীদের লক্ষ্য করে গুলি করলে টেডিয়ন জি মোমিন (৪৬) নামে এক ভারতীয় চোরাকারবারী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

হালুয়াঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান বলেন, ঘটনাস্থল থেকে বিজিবির সহযোগিতায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন।