বাহুবলে ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মহিলাসহ দুইজনের কারাদণ্ড 

বাহুবল হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: বাহুবলে বয়স্ক ভাতাভুক্তদের নিকট থেকে ভাতার টাকা তুলে দেয়ার কথা বলে ৪হাজার ৮শ টাকা আত্মসাৎদের অভিযোগে বাহুবল সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৩,৪,৫ ও নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার আলফা বেগম ও তার সহযোগী ফাতেমা বেগমকে ৭দিনের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক তাদেরকে ৭দিনের কারাদন্ড প্রদান করেন।

জানা যায়,বাহুবল উপজেলার বড়ইউড়ী গ্রামের সাবেক মেম্বার মুক্তার হোসেনের মেয়ে ৪নং বাহুবল সদর ইউনিয়নের ৩,৪,৫ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার আলফা বেগম দীর্ঘদিন যাবত সমাজসেবা কার্যালয়ের কিছু অসাধু ব্যক্তির সাথে হাত মিলিয়ে দাপটের সঙ্গে বয়স্ক ভাতাভোগীদের কাছ থেকে তাদের ভাতার টাকা তুলে দেয়ার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন অবিরত।

কিন্তু আলফা বেগমের সাথে রয়েছে অনেক দালাল চক্র তিনি নিজেও শক্তিশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস পায়নি কেউ।

(৪ ডিসেম্বর) বুধবার ভাতাভোগীদের কাছ থেকে তাদের ভাতার টাকা তুলে দেয়ার কথা বলে তার সহযোগী উপজেলার ভেড়াখাল গ্রামের ফিরোজ আলীর মেয়ে ফাতেমা বেগমের মাধ্যমে ৪ হাজার ৮শ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মেম্বার আলফা বেগম ও তার সহযোগী ফাতেমা বেগমকে ৭ দিনের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক।

আয়েশা হক জানান,ঘুষ দেয়া নেয়া সমান অপরাধ,তাই অপরাধী দু’জনকেই কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

বিকেলেই মেম্বার আলফা বেগম ও ফাতেমা বেগমকে থানা পুলিশের মাধ্যমে হবিগঞ্জ জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।