বাহুবলে দ্বিগাম্বর ছড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, প্রতিকার চেয়ে আদালতে মামলা

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জুন ১২ ২০১৯, ১৪:১৯

বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের বাহুবলে দিগাম্বর ছড়ায় অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে প্রতিনিয়ত বালু উত্তোলন করছে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি চক্র। ফলে উক্ত ছড়ায় নবনির্মিত এলাকাবাসীর যাতায়াতের একমাত্র অবলম্বন ব্রিজটি ভেঙ্গে পরার আশংকা রয়েছে।

জানা যায়,উপজেলা বাহুবল উপজেলার ২নং পুটিজুরী ইউনিয়নের আব্দানারায়ন ও হাজীমাদাম গ্রামের মধ্য স্থানে দ্বিগাম্বর ছড়ার উপর এলাকাবাসীর সার্থে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার রুবেল মিয়ার প্রচেষ্টায় সরকারের ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি ব্রিজ নির্মাণ ও প্রায় ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে আব্দানারায়ন,হাজীমাদাম গ্রামসহ এলাকাবাসীর জন্য রাস্তা নির্মাণ করা হয়।

উক্ত ব্রিজ নির্মাণের পর পরই ব্রিজের চতুরদিকে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে শুরু হয় বালু উত্তোলন।

যার ফলে সরকারের ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মানাধীন ব্রিজটি ভেঙে পড়ার আশংকা রয়েছে। যে কোন দিন ভেঙ্গে পরে যেতে পারে এর ভয়ে উল্ল্যেখিত গ্রামের জনসাধারণ ব্রিজটি ব্যবহার থেকে বিরত রয়েছেন বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে ।

ওই ব্রিজ ও রাস্তা ব্যবহার করে অবৈধভাবে শুরু করা হয় বালু উত্তোলনের পাশাপাশি মাটির ব্যবসাও।

এর প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে রুবেল মেম্বার বাদী হয়ে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক, বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেও ব্যর্থ হয় এলাকাবাসী।
বালু ও মাঠি দীর্ঘদিন যাবত উত্তোলন করে আসছে একটি কু চক্র মহল,যার ফলে ধ্বংস হতে যাচ্ছে পরিবেশ, মরুভূমিতে পরিণত হচ্ছে প্রকৃতির সুন্দর্যে ঘেরা পাহাড়ী এলাকা।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এলাকাবাসী বালু উত্তোলনে বাধা দিলেও,বাধা কে তোয়াক্কা দিয়েই জোরপূর্বক ভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছেন এই প্রভাবশালী কু চক্র মহল।

এদিকে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে একাধিক অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার না পাওয়ায় স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ রুবেল বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৪ জনের নামসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামী করে(২০১০)এর ১৫-(১) ধারায় বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনে ১১ জুন বুধবার আদালতে মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়ের করার পর থেকে ইউপি সদস্য রুবেলকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে গনমাধ্যম কর্মীদের জানিয়েছেন রুবেল মেম্বার।

তিনি বলেন, আদালতে মামলা দায়ের করার পর থেকে আমি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাফেরা করছি।