বাংলাদেশকে ১৭শ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্ব ব্যাংক

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

সেপ্টেম্বর ২৭ ২০২০, ১১:৩৭

393293 01: A view of the World Bank building October 5, 2000 in Washington, DC. The World Bank bank lends money to developing countries around the world. (Photo by Per-Anders Pettersson/ Getty Images)

গ্রামাঞ্চলে নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশনে উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশকে ২০ কোটি ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৭০০ কোটি টাকা) ঋণ অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে বিশ্ব ব্যাংকের সদর দফতরে সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে এই ঋণ অনুমোদন দেয়া হয়।

বিশ্ব ব্যাংকের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ রুরাল ওয়াটার, স্যানিটেশন অ্যান্ড হাইজিন ফর হিউম্যান ক্যাপিটাল ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প বাস্তবায়নে এই ঋণ দেয়া হবে। এর আওতায় গ্রামাঞ্চলের প্রায় ছয় লাখ মানুষকে বড় ও ছোট পাইপের মাধ্যমে নিরাপদ ও সুপেয় পানি সরবরাহ করা হবে।

এছাড়াও প্রকল্পটির আওতায় ৩৬ লাখেরও বেশি গ্রামীণ মানুষকে উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধা সরবরাহ করা হবে বলেও জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে। ময়মনসিংহ, রংপুর, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ৭৮টি উপজেলায় এই প্রকল্প চলবে।

এই ঋণ দুই শতাংশ সুদসমতে পাঁচ বছরের রেয়াতকালসহ ৩০ বছরে পরিশোধ করতে হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বিশ্ব ব্যাংকের বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেন, প্রকল্পটি পরিষ্কার পানি ও স্যানিটেশন সেবা দেবে। এই প্রকল্প ডায়রিয়াজনিত রোগ ও পাঁচবছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে অপুষ্টিজনিত প্রতিবন্ধিতা কমাবে এবং পুষ্টি ও স্বাস্থ্যের মানোন্নয়ন করবে। বিশেষ করে অপেক্ষাকৃত দুর্বলরা এই প্রকল্প থেকে উপকৃত হবেন।

তিনি বলেন, প্রকৃতি থেকে বিশুদ্ধ পানির সুযোগ এবং স্যানিটেশন সুবিধা তৈরি করবে এই প্রকল্পটি। সেইসঙ্গে ভুপৃষ্ঠের জলাবদ্ধতা এবং ভূগর্ভস্থ পানির দূষণ কমাতে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উন্নত করবে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় দেড়শ নারী উদ্যোক্তাকে ঘরে ঘরে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিক্রয় করার জন্য ক্ষুদ্র ঋণ দেয়া হবে বলেও জানান বিশ্ব ব্যাংকের এই কর্মকর্তা।