পাবনায় ছাত্রলীগ নেতার নেতৃত্বে দুলাভাইকে বেঁধে রেখে শালীকে গণধর্ষণ

পাবনার সুজানগরে ছাত্রলীগ নেতার নেতৃত্বে এক গৃহবধুকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় সোমবার (২৩ মার্চ) সকালে নির্যাতিতা গৃহবধু বাদী হয়ে পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক সুমন খানসহ (২৩) পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে সুজানগর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত সরদার সুমন হোসেন পটল ( ২২) নামের বখাটেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায় , গণধর্ষণের শিকার হওয়া গৃহবধূ রোববার সন্ধ্যায় সাঁথিয়া থেকে নিজের দুলাভাইয়ের সাথে সদর উপজেলার কোলাদীতে বোনের বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে, সুজানগর উপজেলায় চরভবানীপুর এলাকায় একদল বখাটে তাদের পথ রোধ করে। তারা গৃহবধূর দুলাভাইকে মারপিট করে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে রাস্তার পাশের গমক্ষেতে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

সোমবার ভুক্তভোগী গৃহবধু পরিবারের সদস্যদের নিয়ে থানায় এসে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সুজানগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলা দায়েরের পর চর সুজানগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত সরদার সুমন ওরফে পটলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতা সুমন খানসহ অপর চার আসামীকে গ্রেফতারেও অভিযান চলছে। তবে, তাদের নাম পরিচয় বিস্তারিত জানাতে রাজি হননি তিনি।

হাদিউল ইসলাম আরো বলেন, প্রাথমিক তদন্তে আমরা ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। ভুক্তভোগী গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।