পর্দা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও মেননদের বক্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: মুফতি ফয়জুল করীম

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

জুন ১৯ ২০১৯, ২২:৫৬

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই রাশেদ খান মেননের বক্তব্য ‘হিজাব তো আর আমাদের দেশের সংস্কৃতি না এটা সৌদি আরবের, তাহলে এটা আমরা কেন পড়বো?’ এধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন ধর্মবিদ্বেষী বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, হিজাব বা পর্দা এটা কোন দেশের বা গোষ্ঠীর নয়, বরং এটা ইসলামের বিধান। মুসলমান হিসেবে সকলকে এ বিধানের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থাকতে হবে। শরীয়তের বিধান নিয়ে কেউ তামাশা করলে তার ঈমান থাকে না। তিনি বলেন, ইসলামের বিধান সকলের জন্য সমান।

মেননরা এর আগেও ইসলাম নিয়ে কটুক্তিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে মুসলিম উম্মাহকে ব্যথিত ও মর্মাহত করেছে। অবিলম্বে মেননকে এধরণের জ্ঞানহীন বক্তব্যের জন্য তওবা করতে হবে এবং মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তিনি আরো বলেন, অতি সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীও পর্দাকে চলন্ত তাবু হিসেবে আখ্যায়িত করে কটুক্তিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত করেছেন। এভাবে ইসলাম ও মুসলমানদেরকে আঘাত করে বক্তব্য দিতে থাকলে ঈমানদার তৌহিদী জনতা প্রতিবাদে রাজপথে নেমে আসতে বাধ্য হবে। প্রধানমন্ত্রী জাতির একজন অভিভাবক হিসেবে পর্দা নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য মানায় না। প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে জাতি আরো দায়িত্বশীল বক্তব্য কামনা করে।

আজ বিকেলে বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ জামিয়া এমদাদুল উলুম মাদরাসার বার্ষিক সবক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আলহাজ্ব হাবীবুর রহমান খান, হাফেজ আব্দুল্লাহসহ স্থানীয় ওলামায়ে কেরাম ও মসজিদের ইমামগণ উপস্থিত ছিলেন।