নেপালের ইতিহাসে প্রথম একজন আলেম সংসদ সদস্য নির্বাচিত

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

জানুয়ারি ৩১ ২০২২, ১৪:২৩

আমিরুল ইসলাম লুকমান:  মুফতি মুহাম্মদ খালিদ সিদ্দীকি নেপাল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সভাপতি। গত ২২ জানুয়ারি ২২-এ অনুষ্ঠিত নেপাল রাষ্ট্রীয়সভা (নেপালের সংসদ দ্বিস্তরবিশিষ্ট, উচ্চকক্ষ (রাষ্ট্রীয়সভা) ও নিম্নকক্ষ (প্রতিনিধিসভা) নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে পরাজিত করে পার্লামেন্টের (উচ্চকক্ষ) সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। মুফতি খালিদের প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৬৬৭৮।

মুম্বাই নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী পেয়েছেন ২৭৬৬ ভোট। উভয়ের প্রাপ্ত ভোটের ব্যবধান ৩৯১২! মুফতি খালিদের বিজয়ের মাধ্যমে নেপালের রাজনীতিতে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হল। কোনো মুসলিম হিসেবে মুফতি খালিদই সর্বপ্রথম নেপাল রাষ্ট্রীয়সভার সদস্য হওয়ার গৌরব অর্জন করলেন। নেপালের ইতিহাসে তার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

মুফতি খালিদ সিদ্দীকি জনতা সমাজবাদী পার্টির পক্ষ থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন। এই পার্টির সাথে নেপাল কংগ্রেস, মাওয়াবাদী পার্টি, নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি, জনমোর্চা নেপালসহ কিছু দলের জোট রয়েছে। অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্দ্বী জনাব উসমান আনসারী প্রার্থী হয়েছিলেন ‘এমালে পার্টির’ পক্ষ থেকে।

জনতা সমাজবাদী পার্টির পক্ষ থেকে নির্বাচনের জন্য মুফতি খালিদের নাম ঘোষণার পর নেপালের সর্বস্তরের মুসলমান, বিশেষ করে উলামায়ে কেরাম তার বিজয়ের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েছেন।

তৃণমূল ও মাঠ পর্যায়ে তুমুল প্রচারণা চালিয়েছেন। নেপাল মুসলমানদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফল হয়েছে, নেপাল রাষ্ট্রীয়সভায় প্রথম কোনো মুসলমানের প্রবেশ!

নেপাল মুসলমানদের গর্বের বিষয়, মুসলিম সম্প্রদায়ের একজন সদস্য এখন রাষ্ট্রীয়সভার গর্বিত সদস্য। নেপালে নির্বাচন ব্যবস্থা প্রত্যাবর্তনের পর অনুষ্ঠিত নির্বাচনগুলিতে কোনো মুসলমান পার্লামেন্টের (উচ্চকক্ষ) সদস্য নির্বাচিত হতে পারেননি। মুফতি খালিদের বিজয়ের মাধ্যমে সে শূন্যতা পূরণ হল।

মুফতি খালিদের বিপুল ভোটের ব্যবধানের বিজয়ে দেশ-বিদেশের প্রখ্যাত ব্যক্তিবর্গ অভিবাদন জানিয়েছেন। বিশ্বখ্যাত বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দের বিশিষ্ট শিক্ষক মাওলানা ইমরানুল্লাহ কাসেমি, নেপাল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সাধারণ সম্পাদক কারি হানিফ কাসেমি, সহসভাপতি মাওলানা হারুন খান, মুফতি হাবিবুর রহমান (হায়দরাবাদ), মাওলানা শুয়াইব (সৌদি আরব), নেপাল থেকে প্রকাশিত উর্দু পত্রিকা ‘সদায়ে আম’-এর সম্পাদক, বিশিষ্ট লেখক-সাহিত্যিক মাওলানা কাসেমসহ সৌদি আরব, বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশের বিশিষ্ট উলামায়ে কেরাম মুফতি খালিদের বিজয়ে শুভেচ্ছা বার্তা প্রেরণ করেছেন।

সূত্র: মুম্বাই উর্দু নিউজ