দেশের ইতিহাসে বসুরহাট পৌরসভার মত সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

ফেব্রুয়ারি ০৬ ২০২১, ১৯:২৪

এম.এস আরমান, নোয়াখালি: বাংলাদেশের ইতিহাসে বসুরহাট পৌরসভার মত অবাধ,সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে ইভিএম-এ এত বেশি ভোট কাষ্ট কোথাও হয়নি। আগামী ইউপি নির্বাচনেও ভোট হবে অবাধ,সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। পরিবেশ নষ্টকরে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার চিন্তা ভাবনা মন থেকে দূর করে মানুষের ভালোবাসায় বিজয়ী হওয়ার অনুরোধ জানান বসুরহাট পৌরসভায় আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

শনিবার কোম্পানীগঞ্জের চরকাঁকড়ায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা এসব কথা বলেন।

এসময় কাদের মির্জা আগামী ইউনিয়ন নির্বাচনে চরকাঁকড়ায় দলিয় প্রার্থী হিসেবে মাহবুবুল আলম আরিফের নাম ঘোষনা করে বলেন,আরিফ যদি অতিতে কোনো ভূল করে থাকে আমি তার হয়ে আপনাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থী। আরিফের জন্য আপনারা দোয়া করবেন এবং যোগ্য মনেহলে ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবেন। আগামী ইউনিয়ন নির্বাচন সকল দলের প্রার্থীদের সতস্ফুর্ত অংশগ্রহনে হবে। বিএনপি-জামাত ও ইসলামী আন্দোলনের নেতাকর্মীদদের উদ্দেশ্যে কাদের মির্জা বলেন,আপনারা মন খুলে উৎসব মূখর পরিবেশে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করুন। আপনাদের দিকে কেউ যদি আঙ্গুল তুলে আমাকে জানাবেন আমি সেই আঙ্গুল ভেঙ্গে দিবো। কোনো প্রকার বাধা ছাড়া নির্বাচনে অংশ গ্রহনের চ্যালেঞ্জ করেন কাদের মির্জা।

এসময় তিনি বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নের বর্ণনায় বলেন,আওয়ামীলীগ সরকার মসজিদ-মাদ্রাসায় যে উন্নয়ন করেছে তা বিএনপি সরকারের তুলনায় অনেক বেশি, তবুও আওয়ামী সরকারকে হুজুরেরা বলে ইসলাম বিরোধী সরকার। অথচ এই ইসলাম বিরোধী সরকারই কাওমী সনদের ব্যবস্থা করেছে।আওয়ামী সরকার ইসলাম বিরোধী নয়, জঙ্গি বিরোধী।জঙ্গিবাদ ইসলামে সাপোর্ট করেনা আমরাও করিনা। মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গ করার বিষয়ে কাদের মির্জা বলেন,যারা মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গ করেছে তাদের বিরুদ্ধে শুধু মাত্র নিন্দা নয়, তাদের ফাঁসি হওয়া উচিত। পাশাপাশি নাস্তিকদের কঠোর সমালোচনা করে কাদের মির্জা বলেন,এদের থেকে দূরে থাকবেন, এরা ধর্মের মধ্যে কোন্দোল সৃষ্টি করে। ওয়াজ মাহফিলে কন্টাক্ট করে টাকা নেয়া ইসলামে বৈধ নয় দাবী করে তিনি বলেন, বর্তমানে কিছু হুজুর আছেন যারা দরদাম করে, কন্টাক্ট করে ওয়াজ করতে আসে, এদের ওয়াজে মানুষ হেদায়াত পায়না কারন তারা নিজেরাই নাজায়েয কাজে লিপ্ত।

আগামী ইউনিয়ন নির্বাচনে দলিয় মনোনয়নের বিষয়ে কাদের মির্জা বলেন,চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করা হয়েছে তবে কোনো মেম্বার প্রার্থীকে দলিয় মনোনয়ন দেয়া হবেনা।যারা প্রার্থী হবেন মাঠে মানুষের কাছে গ্রহণ যোগ্যতা তৈরি করুন। মানুষের ভালোবাসা অর্জণ করুন। নির্বাচনে কোনো কেন্দ্রে যদি অনিয়ম হয় সাথে সাথে ঐ কেন্দ্রে নির্বাচন বন্ধ ঘোষনা করা হবে। প্রয়োজনে ঐ কেন্দ্রে একাধিকবার নির্বাচন হবে তবুও জোর পূর্বক, ক্ষমতা ব্যবহার করে নির্বাচিত হতে দেয়া হবেনা বলে কঠোর ঘোষনা দেন আবদুল কাদের মির্জা।