তুরস্কের বন্ধুত্ব ও সহায়তা আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

আগস্ট ২২ ২০২১, ১৪:৫৪

আফগানিস্তানের পুনর্গঠনের জন্য তালেবানের তুরস্ককে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। সশস্ত্র সংগঠন তালেবানের মুখপাত্র সোহাইল শাহিন এ কথা বলেছেন।

তিনি তুরস্কের সরকারপন্থি দৈনিক ‘তুর্কিয়া’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন। তুর্কি বার্তা সংস্থা বায়ানেট ও পার্সটুডে এ খবর জানিয়েছে.

তালেবানের মুখপাত্র সোহাইল শাহিন, ‘আমাদের সব অবকাঠামো ধ্বংস হয়ে গেছে। আমরা স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা, অর্থনীতি, নির্মাণ, জ্বালানি এবং ভূগর্ভস্থ সম্পদ প্রক্রিয়াকরণের ক্ষেত্রে তুরস্কের সহযোগিতা চাই।’

‘অভ্যন্তরীণ ভারসাম্য এসে যাওয়ার পর আমরা আশা করি, আমাদের তুর্কি বন্ধুরা এসব ইস্যুতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে’, যোগ করেন সোহাইল শাহিন।

তালেবানের মুখপাত্র আরও বলেন, ‘তুরস্ক আমাদের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। বিশ্বের একটি নির্ভরযোগ্য ও শক্তিশালী দেশ তুরস্ক। মুসলিম বিশ্বেও তুরস্কের উঁচু মানের গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। … আফগানিস্তানের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্ককে অন্য কোনো দেশের সঙ্গে তুলনা করা চলে না।‘’

এর আগে কাবুল দখলের এক দিন পর গত ১৬ আগস্ট তুরস্কের ক্ষমতাসীন সরকারের নিউজ চ্যানেল ‘তুর্ক খবর’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সোহাইল শাহিন বলেছিলেন, ‘তুরস্ক আমাদের কাছে একটি ভ্রাতৃপ্রতিম ইসলামি দেশ হিসেবে বিবেচিত।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা তুরস্কের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপন করতে চাই।’

গত ১৮ আগস্ট তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেছেন, তুরস্ক তালেবানের ‘মধ্যপন্থি’ বক্তব্যকে স্বাগত জানায়। এবং তালেবানের সঙ্গে তুরস্কের যোগাযোগ রয়েছে।