টেকনাফ স্থল বন্দরে শুল্ক ডিউটি (সিডি) প্রত্যাহার দাবী

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

সেপ্টেম্বর ২০ ২০২০, ১৩:১৪

কায়সার হামিদ মানিক, কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফ স্থল বন্দর আমদানি কারকেরা কাস্টম ডিউটি (সি.ড)প্রত্যাহার দাবী করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা। ২০২০ সালের জুন মাসে কাস্টম ডিউটি (সিডি) ৫%শতাংশ ফি চালু করে এবং আমদানি কারকেরা এ ফি দিয়ে ব্যবসায় লোকসান গুনছে। এ কারনে আমদানি কারকেরা ব্যবসা করতে অপারগতা প্রকাশ করছে।

শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর টেকনাফের বেশ কয়েকজন আমদানী কারকের বলেন বিপরীত ২৯ টন পিয়াজঁ মিয়ানমার থেকে ৬৫ টাকা কেজিতে আমদানি ব্যয় হয়। প্রতি কেজি পিঁয়াজের কর আসে ৩ টাকা এবং সিডি ৫% টাকা। ২৯ টন পিঁয়াজ এবং ২৯ হাজার ৬ শত কেজি পিঁয়াজের অন্যান্য কর সহ মোট আসছে ৮২ হাজার ৫ শত টাকা ব্যবসায়ীদের নতুন আরোপিত শুল্ক ডিউটি (সি.ডি) প্রত্যাহার না করলে যে কোম পন্য আমদানী থেকে বিরত থাকবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাস্টম সুপার মোঃ নাসির উদ্দিন জানান জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এম,বি,আর) ২০২০ সালের জুন মাস নাগাদ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কাসঠমস ডিউটি (সি.ডি) ফি প্রজ্ঞাপন দেশের ১৪ টি ছোট বড় স্থল বন্দরে চালু করেছে। এটি রাখা না রাখা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ব্যাপার। এতে আমাদের কোনো হাত নেই।