টিকা উৎপাদন করে অন্যদের দেওয়ার সক্ষমতা বাংলাদেশের আছে

একুশে জার্নাল ডটকম

একুশে জার্নাল ডটকম

নভেম্বর ১৫ ২০২১, ১৭:৪২

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধী টিকা উৎপাদন করে অন্য দেশকে দেওয়ার মতো সক্ষমতা বাংলাদেশের আছে বলে জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) সংসদের সাধারণ আলোচনায় সাম্প্রতিক সফরে দেওয়া বক্তৃতার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, আমরা নিজেরা ভ্যাকসিন তৈরি করতে চাই। ভ্যাকসিন তৈরির যে বাধাগুলো আছে, সেগুলো আপনাদের সরিয়ে দিতে হবে, উন্মুক্ত করতে হবে। এটা জনগণের প্রাপ্য। জনগণের সম্পদ হিসেবে দিতে হবে। সারাবিশ্বের কোনও মানুষ যেন ভ্যাকসিন থেকে দূরে থাকতে না পারে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদেরকে ভ্যাকসিন উৎপাদনে সুযোগ দিলে আমরা তা করব। আমরা বিশ্বে দিতে পারবো, সে সক্ষমতা আমাদের আছে। জমিও নিয়ে রেখেছি। এভাবে উদ্যোগ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি আমরা।

সরকারপ্রধান বলেন, আমরা যে করোনা মোকাবিলায় সফল, এর জন্য যে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে- আমি এটাও বলে এসেছি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে পুরস্কার চালু করায় জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা- ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জানাতে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য সাবেক প্রধান হুইপ আব্দুস শহীদ কার্যপ্রণালি বিধির ১৪৭ বিধিতে সাধারণ আলোচনার জন্য জাতীয় সংসদে একটি প্রস্তাব তোলেন। প্রস্তাবে বলা হয়- জাতীয় সংসদে বিশেষ আলোচনার মাধ্যমে ইউনেস্কোকে বাংলাদেশের সকল জনগণের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানানো হোক।

বঙ্গবন্ধুর নামে পুরস্কার চালু করায় সংসদের আলোচনায় ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। সাধারণ আলোচনায় স্বাধীনতার পর দেশের অর্থনীতির উন্নয়নে জাতির পিতার গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ৭৫ এর পর আমরা কী দেখেছি? ১৯টা ক্যু হয়েছে। এসময় হাজারো সেনাবাহিনীর অফিসার ও সৈনিক, বিমান বাহিনীর অফিসার ও সৈনিক এবং সাধারণ মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছে। এসময় কারাগারে নির্যাতন চলেছে। গুলি-অস্ত্র, দুর্নীতি- এটাই ছিল জননীতি। এর বাইরে একটা দেশকে যে উন্নত করা যায়, সেদিকে কোনো আন্তরিকতাই আমরা দেখিনি।