জনশূন্য বালাগঞ্জ, হাটবাজারগুলো বন্ধ

আবুল কাশেম অফিক, বালাগঞ্জ থেকে: 

করোনাভাইরাসের ভয়ে জনশূন্য বালাগঞ্জ উপজেলা। উপজেলার প্রতিটি হাটবাজারগুলো বন্ধ রয়েছে। একান্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে কেউ বের হচ্ছেন না। ফলে উপজেলার প্রতিটি এলাকা নীরব নিস্তব্ধ। চিরচেনা শহর এযেন এক অচেনা লাগছে! সর্বদা মানুষের ভীড় লেগে থাকা উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারগুলো ফাঁকা।

সরজমিন বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) বালাগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ চিত্রই দেখা গেছে। কার্যত পুরো উপজেলা জনশূন্য, নিরব-নিস্তব্ধ। অতি জরুরি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দোকান অর্থাৎ মুদির দোকান ও ফার্মেসির দোকান ছাড়া সব দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

উপজেলার ব্যাস্ততম বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, যেখানে প্রতিদিন শত শত মানুষের ভিড় লেগেই থাকতো, সেই বাজারগুলোতে শুনশান নিরবতা। নেই কোন মানুষের আনাগোনা। মাঝেমধ্যে দু-একটি রিক্সা ও সিএনজি চলাচল করলেও সব যানবাহন বন্ধ রয়েছে।

আজ ছিল মহান ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রসাশনের উদ্যোগ সীমিত পরিসরে এই দিবসটি পালিত হয়েছে। ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০২০ উপলক্ষে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাকুর রহমান মফুর।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় খোজ নিয়ে কোথাও এই দিবস পালনের খবর পাওয়া যায়নি।

সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সেনাবাহিনীর সদস্যদের টহল দিতে দেখে জরুরি প্রয়োজনে বাজারে আসা লোকজন আতঙ্কিত হয়ে তড়িঘড়ি করে বাজার ত্যাগ করতে দেখা গেছে।

এছাড়াও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে পুলিশের সদস্যদের নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নিয়মিত টহল দিতে দেখা গেছে।

এদিকে তৃতীয় দিনের মতো আজও বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মুনিম এর উদ্যোগে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতার লক্ষ্যে বিভিন্ন ল কর্মসূচী অব্যাহত রেখেছে। বালাগঞ্জ পুর্ব বাজারে সাবান পানি দিয়ে হাত ধোঁয়ার কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়।