ছাতকে ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর

একুশে জার্নাল

একুশে জার্নাল

ডিসেম্বর ২৭ ২০২০, ০৯:৫৩

ছাতক প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের ঐকন্তিক প্রচেষ্টায় অবশেষে সকল জটিলতার অবসান করে ছাতকের সুরমা নদীর উপর নির্মিতব্য সেতুর অবশিষ্ট কাজ বাস্তবায়ন প্রকল্পে অধিগ্রহণকৃত ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর করা হয়েছে।

শনিবার বিকালে নির্মিতব্য সেতুর গোড়ায় ৬জন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাক্তির মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে চেক বিতরণ করে ক্ষতিপূরণের সুচনা করেন সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক।

এর আগে নানান জটিলতায় ভুক্তভোগী ভূমি মালিকদের মামলায় দীর্ঘদিন আটকে ছিলো সেতুটির অবশিষ্ট কাজ। গত ২৮ সেপ্টেম্বর সেতুর অ্যাপ্রোচ ও আধুনিক টোল প্লাজা নির্মাণের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে এমপি মানিক ঘোষণা দিয়েছিলেন ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা তিনি ব্রিজের গোড়ায় এনে দিয়ে যাবেন। এর প্রেক্ষিতে শনিবার (২৬ডিসেম্বর) বিকালে ৬জন ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে প্রায় ৭২লক্ষ টাকার চেক বিতরণ করে এর সুচনা করেন তিনি।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাকর মোস্তফা আহসান হাবিবের পরিচালনায় চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে স্বাগত রাখেন ছাতক উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রহমান, সড়ক ও জনপথ সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, ভূমি মালিক জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

এসময় ছাতক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, এডিসি (রাজস্ব) রাশেদ ইকবাল চৌধুরী, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ছাতক সার্কেল) বিলাল হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপশ শীল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সৈয়দ আহমদ, ইউপি চেয়ারম্যান গয়াছ আহমদ, আওলাদ হোসেন, মুরাদ হোসেন, বিলাল আহমদ, সায়েস্তা মিয়া, অদুদ আলম, আওয়ামীলীগ নেতা মোশাহিদ আলী, আনিসুর রহমান চৌধুরী সুমন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, ইউপি সদস্য ফজলু মিয়া, ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ১৬ বছর নানা জটিলতায় আটকে থাকা সুরমা ব্রিজ বাস্তবায়ন কাজ শেষের দিকে আসায় উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের শিল্পাঞ্চল বৃহত্তর ছাতকের মানুষ আনন্দে ভাসছেন। ব্রিজটি নির্মাণের ফলে ছাতকের যোগাযোগ ও ব্যবসার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।