করোনাভাইরাস: মসজিদে জামাত বিষয়ে ইফার বৈঠকে শীর্ষ আলেমদের নির্দেশনা

বর্তমান দেশের করোনা পরিস্থিতিতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনার ভাইরাস সংক্রমণ রোধে এবং মানুষের মৃত্যু ঝুঁকি থেকে সুরক্ষার আকস্মিক পদক্ষেপ হিসেবে সর্বপ্রকার জমায়েত বন্ধের পাশাপাশি মসজিদসমূহে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে সম্মানিত মুসল্লিগণের উপস্থিতি সীমিত ও ক্ষুদ্র পরিসরে রাখা যেতে পারে। মসজিদের ইমাম মুয়াজ্জিন ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিগণ সুরক্ষা পদ্ধতি অবলম্বনপূর্বক মসজিদে আজান ও জামাত যথাসম্ভব বজায় রাখবেন। মসজিদ বন্ধ থাকবে না। তবে সর্বসাধারণ নিজ নিজ গৃহে অবস্থান পুর্বক সুরক্ষা পদ্ধতি অবলম্বন করে জামাতবদ্ধ হয়ে নামাজ আদায় করে নিবেন।

বিজ্ঞপ্তির শেষে আরো উল্লেখ করা হয়, সবাই ব্যক্তিগতভাবে তওবা-ইস্তেগফার অব্যাহত রাখবেন মহান আল্লাহর ক্ষমা ও করুণা প্রার্থনা করুন। মহান আল্লাহ আমাদের দ্রুত মুক্তির দুয়ার উন্মুক্ত করুন। আমীন।”

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাদের পাশাপাশি বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ফরিদাবাদ মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মারকাযুদ্দাওয়াহ আল ইসলামিয়ার আমীনুত তালীম মাওলানা আবদুল মালেক, মসজিদুল আকবরের মুহতামিম মুফতি দিলাওয়ার হুসাইন, শায়খ যাকারিয়া ইসলামি রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক মুফতি মিযানুর রহমান সাঈদ, রাহমানিয়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক, ঢাকা নেছারিয়া কামিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল ড. মাওলানা কাফিলুদ্দীন সরকার প্রমুখ।